প্রাণের অমরত্ব মলিকুলারে


সালেহীন সাজু

শূন্য থেকে ছুটছে সবি, যে যার মত
ঘুরছে সবি নিজের পথে, নিজের মত
ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতর, বৃহৎ থেকে বৃহত্তম
ঘুরছে সবি, ছুটছে সবি, যে যার মত
চক্রাকারে, বক্রাকারে ঘুরছে সবি
চন্দ্র যেমন নিজের পথে পৃথিবী বুকে
পৃথিবী তেমন নিজের পথে সূর্য বুকে
বৃহৎ থেকে ক্ষুদ্রতর, পরমাণুর কক্ষপথে
ইলেকট্রন গুলো চক্রাকারে, ঘুরতে থাকে,
ছুটতে থাকে নদী যেমন সাগর পানে
জোয়ার-ভাটা সাগর বুকে চাঁদের টানে
পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে পৃথিবী ছুটে
পালাক্রমে পৃথিবী বুকে সকাল, দুপুর
বিকেল, রাত্রি নামে কিম্বা উঠে, চক্রাকারে
দিনের মত মাস ঘুরে, বছর জুড়ে
গাছের ডালে পাতা আসে, পাতা ঝরে
চক্রাকারে, শিশুর মত বৃদ্ধ অসহায়
হাঁটা শিখে, হাঁটা ভুলে, কথা শিখে, কথা ভুলে
শূন্য থেকে ছুটে, ছুটে শেষে শূন্য ই মিলে
তবুও জীবন অমরত্ব পায় মলিকুলারে।

Please follow and like us:
error0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *